Notice

BOESL দক্ষিণ কোরিয়া লটারি রেজাল্ট ২০২৩

দক্ষিণ কোরিয়া লটারি ২০২৩ শুরু হতে যাচ্ছে ০৬ ই জুন তারিখ থেকে। যারা EPS দক্ষিণ কোরিয়া লটারি ভিসায় যেতে চান তারা আবেদন করতে পারেন। আবেদনের প্রথম শর্ত হলো মেয়াদসম্পন্ন পাসপোর্ট থাকতে হবে এবং এসএসসি সার্টিফিকেট থাকতে হবে।

০৬ জুন সকাল ১০ টা থেকে ০৮ জুন বিকাল ০৪ টা পর্যন্ত আবেদন চলবে। কোরিয়া লটারি আবেদন ২০২৩ কোরিয়া ভাষায় দক্ষ ও অদক্ষ উভয়ই আবেদন করতে পারবেন। অনলাইনে ২০ হাজার আবেদন হলে এইচ আর ডি কর্তৃক লটারি প্রক্রিয়াকরণ শুরু হবে। যারা লটারি তে উত্তীর্ণ হবে তারা ই পরবর্তী ধাপের জন্য প্রস্ততি নিবেন। দক্ষিণ কোরিয়া লটারি সরকারি ভাবে লোক নেওয়া হয়।

অনলাইন আবেদনের জন্য আপনার পাসপোর্টের স্ক্যান করা ছবি এবং আপনার নিজের ছবি বোয়েসেল এর নোটিশ অনুযায়ী Resize করে নিন। কীভাবে আবেদনের ফি জমা দিবেন তা জেনে নিন এখান থেকে।

Contents

দক্ষিণ কোরিয়া লটারি ২০২৩

ইপিএস ইউবিটি কোরিয়া লটারি রেজিস্ট্রেশন ই যারা আবেদন করবে তারা কোরিয়া ভাষা পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করবে। কোরিয়া ই-৯ ভিসার কয়েকাটি ধাপ রয়েছে। তার মধ্যে সর্ব প্রথম ধাপটি হলো প্রাথমিক অনলাইন আবেদন। আবেদন সম্পন্ন হবে Eps boesl gov bd ওয়েবসাইটে। তবে এখান থেকে আপনি সরাসরি বোয়েসেল কোরিয়া লটারির জন্য আবেদন করতে পারবেন।

সম্প্রতী বোয়েসেল কর্তৃপক্ষ দক্ষিণ কোরিয়া লটারির সার্কুলার Eps boesl gov bd registration এ প্রকাশ করেছে। নোটিশ টি তে সকল তথ্য দেওয়া আছে যেমনঃ আবেদনের যোগ্যতা, কারা আবেদন করতে পারবে না, আবেদনের সময়সূচী ও আরও তথ্যাদি। সকল তথ্য জানতে নিচের লাইনগুলো পড়ুন।

লটারি অনুষ্ঠিত হবে ১১ ই জুন বোয়েসেল-এর অভিবাসি সম্মিলন হলে । সকাল ১১ টায় লটারি অনুষ্ঠিত হবে। দক্ষিণ কোরিয়া লটারি একটি দারুণ সুযোগ বাংলাদেশের নাগরিকদের কর্মসংস্থানের জন্য। যাদের আবেদনের যোগ্যতা আছে অর্থাৎ পাসপোর্ট আছে তারা অপেক্ষা না করে আবেদন করে ফেলুন।

ইপিএস ইউবিটি কোরিয়া লটারি রেজিস্ট্রেশন

UBT ’ইউবিটি’ অর্থাৎ কোরিয়া ভাষা পরীক্ষা এর তারিখ ও সময়সূচী প্রকাশিত হয়েছে। যারা প্রাথমিক আবেদন করবে এবং লটারি তে টিকবে তারা ইপিএস ইউবিটি তে অংশগ্রহণ করবে। এখানে উল্লেখ্য যে, লটারি তে সিলেক্ট হওয়া প্রার্থীগণ নিজ দায়িত্বে কোরিয়া ভাষা শিখবেন।

২০২৩ সালের দক্ষিণ কোরিয়া লটারির সময়সূচী দেখে নিনঃ

  • প্রাথমিক আবেদনঃ ০৬ জুন থেকে ০৮ জুন বিকাল ০৪ টা পর্যন্ত
  • লটারিঃ ১১ জুন অনুষ্ঠিত হবে।
  • চূড়ান্ত নিবন্ধনঃ ১৩ জুন ২০২৩ খ্রি. তারিখ থেকে রোস্টার ভিত্তিক চূড়ান্ত নিবন্ধন শুরু হবে
  • ব্যক্তিভিত্তিক ভাষা পরীক্ষাঃ ২৫ জুলাই থেকে ১৩ ই সেপ্টেম্বর।

ভাষা পরীক্ষা হওয়ার পর পরবর্তী ধাপগুলো একে একে সম্পন্ন হবে। এ ব্যাপারে eps boesl gov bd & boesl.gov.bd তে নোটিশ আপলোড করা হবে।

BOESL কোরিয়া অনলাইন নিবন্ধন-২০২৩

প্রার্থীগণ UBT ইউবিটি বা কোরিয়া ভাষা পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হওয়ার পর ই চূড়ান্ত ভাবে সিলেক্ট হবে ই-৯ ভিসার জন্য। তবে মেডিকেল ও দক্ষতা পরীক্ষায় ও উত্তীর্ণ হতে হবে। দক্ষতা পরীক্ষার বিস্তারিত তারিখ ও সময়সূচী পরবর্তীতে জানানো হবে।

BOESL (Bangladesh Overseas & Employment Services Ltd) এর মাধ্যমে বিভিন্ন দেশে বাংলাদেশের কর্মী পাঠানো হয় সরকারি ভাবে। ২০২৩ সালের দক্ষিণ কোরিয়া লটারি আবেদন শুরু হয়েছে ০৬ জুন। ০৮ জুন আবেদন শেষ হবে এবং তারপর লটারি অনুষ্ঠিত হবে। লটারি টি ফেসবুক লাইভ এর মাধ্যমে সম্প্রচার করা হবে সকলের জন্য।

বোয়েসেল কোরিয়া লটারির আবেদনের যোগ্যতা

South Korea Lottery Registration 2023 has been started. Kindly apply online through boesl.gov.bd or eps boesl gov bd portal.

ইপিএস টপিক দক্ষিণ কোরিয়া যাওয়ার স্বপ্ন অনেকের রয়েছে । কোরিয়া ভিসা পাওয়ার প্রথম ধাপ হচ্ছে অনলাইন আবেদন। তবে আবেদনের কিছু শর্ত রয়েছে যেগুলো আপনাকে অবশ্যই পূরণ করতে হবে। সেগুলো হলোঃ

  • আপনার বয়স হতে হবে ১৮ থেকে ৩৯ বছর। অর্থাৎ, জন্ম তারিখ জুন ১৪, ১৯৮৪ থেকে জুন ১৩, ২০০৫ এর মধ্যে হতে হবে।
  • এসএসসি/মাধ্যমিক সার্টিফিকেট থাকতে হবে আবশ্যিকভাবে।
  • পাসপোর্ট থাকা বাধ্যতামূলক এবং পাসপোর্ট টি হালনাগাদ হতে হবে। পাসপোর্ট-এর মেয়াদ ৬ জুন ২০২৩ পর্যন্ত থাকতে হবে ।
  • পাসপোর্ট ও NID এর সকল তথ্যের মিল থাকতে হবে (নাম, জন্ম তারিখ, ঠিকানা, ছবি ইত্যাদি)।
  • কোরিয়া তে গিয়ে কঠিন ও পরিশ্রমের কাজ করার মানসিকতা থাকতে হবে।

আপনি যদি সকল যোগ্যতা পূরণ করে থাকেন তবে আপনি আবেদন করতে পারেন । আবেদনের সময় আপনার নিজের ছবি এবং আপনার পাসপোর্টের স্ক্যান করা ছবি আপলোড করতে হবে।

নোটঃ কোন ভুল বা অসত্য তথ্য প্রমাণিত হলে প্রার্থীর আবেদন বাতিল হবে এবং তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তাই আবেদন সাবমিট করার আগে ভালোভাবে যাচাই করে নিন।

Eps boesl gov bd Online নিবন্ধন

Eps boesl gov bd ওয়েবসাইটের মাধ্যমে প্রাথমিক আবেদন করতে হবে। প্রাথমিক আবেদনের ফি ৫০০/= যেটা মোবাইল ব্যাংকিং এর মাধ্যমে পে করা যাবে।

কোরিয়ান লটারি অনলাইন নিবন্ধন যে ভাবে করবেন । বোয়েসেল কোরিয়া রেজিস্ট্রেশন করতে আপনাকে প্রথমে বিস্তারিত জানতে হবে। দক্ষিণ কোরিয়া লটারি ২০২৩ রেজিস্ট্রেশন করার আগেই আপনার নিজের ছবি ও পাসপোর্টের স্ক্যান করা ছবি প্রস্তুত রাখুন। তারপর আবেদন শুরু করুনঃ

  • প্রথমে বোয়েসেল এর আবেদন এর লিংক Eps boesl gov bd এ ক্লিক করুন
  • তারপর ‘New Registration’ এ ক্লিক করুন
  • আপনার পাসপোর্ট নম্বর ও ই-মেইল নম্বর দিন
  • তারপর আপনার বিস্তারিত সকল তথ্য দিন
  • নিজের ছবি ও পাসপোর্ট এর স্ক্যান করা ছবি আপলোড করুন
  • সকল তথ্য চেক করুন এবং সাবমিট করুন।

আবেদনের পর আপনাকে আবেদন ফি পরিশোধ করুন। আবেদনের ফি 500/= মোবাইল ব্যাংকিং (বিকাশ) এর মাধ্যমে পরিশোধ করা যাবে।

দক্ষিণ কোরিয়ার লটারি ভিসার নিয়ম ২০২৩

প্রাথমিক আবেদনে যারা ভাষা শিখেছে এবং যারা ভাষা শিখে নাই উভয়ই আবেদন করতে পারবেন। যারা ভাষা শিখে নাই তারা ভাষা শিখে নিবে এবং কোরিয়া ভাষা পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করবে। কোরিয়া ভাষা পরীক্ষা বা ইউবিটি তে উত্তীর্ণ হওয়া ছাড়া কোনভাবেই ই-৯ ভিসা পাবে না।

কোরিয়া ভাষা শিখার জন্য জেলা পর্যায়ে সরকারি ভাবে ইপিএস টপিক উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে তবে সেটা সময় সাপেক্ষ। বেসরকারি ভাবে কিছু প্রতিষ্ঠান আছে যারা কোরিয়া ভাষা প্রশিক্ষণ দিয়ে থাকে। যারা কোরিয়া ভাষা শিখতে চান তারা বেসরকারি এসব প্রতিষ্ঠানের থেকে শিখতে পারেন। আপনাকে মনে রাখতে হবে যে ভাষা পরীক্ষায় আপনাকে অবশ্যই পাশ করতে হবে। অন্যথায় আপনি স্কিল টেস্টের জন্য সিলেক্টেড হবেন না।

দক্ষিণ কোরিয়া ভিসা পাওয়ার ধাপসমূহ

বোয়েসেল এর দক্ষিণ কোরিয়া লটারি একটি সময় সাপেক্ষ ব্যাপার। কয়েকটি ধাপে এটি যাচাই-বাছাই হওয়ার পর চূড়ান্ত ভিসা প্রাপ্ত কর্মী তালিকা করা হয়।

জেনে নিন দক্ষিণ কোরিয়া ভিসা পাওয়ার ধাপসমূহঃ

ধাপ ১ – সকল প্রার্থীগণ অনলাইন আবেদন  করবে।

ধাপ ২ – সিলেক্ট হওয়া প্রার্থীগণ চূড়ান্ত নিবন্ধনের মাধ্যমে কোরিয়া ভাষা পরীক্ষা তে অংশগ্রহণ করবে।

ধাপ ৩ – কোরিয়া ভাষা পরীক্ষার বা ইউবিটি ফলাফল প্রকাশ করা হবে।

ধাপ ৪ – ইউবিটি তে উত্তীর্ণ প্রার্থীগণ স্কিল টেস্টে অংশ নেবে।

ধাপ ৫ – কম্পিটেন্টি ও স্কিল টেস্টে উত্তীর্ণ প্রার্থীগণ জেলা পর্যায়ে স্বাস্থ্য পরীক্ষা করবে।

ধাপ ৬ – সকল ধাপের পর ফাইনাল লেবার কন্ট্রাক্ট ও ৪৮ ঘন্টার প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে।

দক্ষিণ কোরিয়া লটারি ২০২৩ এ যারা আবেদন করতে পারবে না

আপনার আবেদন শুরু করার আগে জেনে নিন কারা এই ই-৯ ভিসার জন্য আবেদন করতে পারবে না বা কোরিয়া ই-৯ ভিসার জন্য অযোগ্য।

  • ই-৯ বা ই-১০ ভিসায় কোরিয়াতে ৫ বছরের বেশি অবস্থানকারীগণ।
  • ফৌজদারি অপরাধে জেল বা অন্য কোনো শাস্তি প্রাপ্ত ব্যক্তি।
  • কালার ব্লাইন্ডনেস বা রঙ বোঝায় অক্ষম ব্যাক্তি।
  • মাদকাসক্ত/সিফিলিস শনাক্ত ব্যক্তিগণ।
  • দক্ষিণ কোরিয়ায় অবৈধভাবে অবস্থানকারীগণ।
  • দেশ ত্যাগে নিষেধাজ্ঞা আছে এমন ব্যক্তিগণ।

আপনি যদি এগুলোর মধ্যে কোনটা তেই অন্তর্ভুক্ত না হয়ে থাকেন তবে আপনি নিশ্চিন্তে আবেদন করতে পারবেন। আবেদনের জন্য এখানে দেওয়া নিয়ম অনুসরণ করুন।

Back to top button